Posted on

আপনি কী চিন্তা করার সময় আঁকিবুঁকি কাটেন? আঁকা এই সব আঁচড় আপনার চরিত্র বুজিয়ে দেবে

আমাদের অনেকেরই চিন্তা করার সময়ে সামনে খোলা কাগজের উপরে আঁকিবুঁকি কাটা অভ্যাস। এই এলোমেলো, খেয়ালখুশির আঁকিবুঁকি ‘ডুডল’ নামে পরিচিত। মনোবিজ্ঞানীরা ও হস্তলিপিবিদ জানান, ডুডুলের কতকগুলো প্যাটার্ন রয়েছে। আমাদের আঁকা এলোমেলো আঁচড়গুলো এই প্যাটার্নের মধ্যেই ঘোরাফেরা করে।

ডুডল আঁকার সময়ে মন কিন্তু আঁকায় নিবদ্ধ থাকে না। এই সব এলোমেলো আঁচড় কাটার সময়ে অনেক ক্ষেত্রেই কাজ করে অবচেতন।
খতিয়ে দেখলে বোঝা যায়, সবাই একই ধরেনের আঁকিবুঁকি কাটেন না। এক এক জনের ডুডল এক এক রকমের হয়ে থাকে। ডুডলের চরিত্র থেকে অনেক ক্ষেত্রেই তার চরিত্র বলে দেওয়া সম্ভব, এ কথা জানায় আধুনিক মনোবিজ্ঞান।

১. যদি এলোমেলো গোলোকৃতির আঁকা ডুডলের আকৃতি হয়ে, তা হলে আপনার মধ্যে সিদ্ধান্ত গ্রহণের বিষয়ে দুর্বলতা রয়েছে।

২. যদি আপনার আঁকা বৃত্তগুলি অসম্পূর্ণ হয়ে থাকে, তবে আপনি খোলামেলা চরিত্রের মানুষ।

৩. আপনি যদি অন্যমনস্ক হয়ে নিখুঁত বৃত্ত আঁকেন, তা হলে বুঝতে হবে আপনি মুক্ত চিন্তার মানুষ। নিজের সমস্যার সমাধান নিজেই করতে পারেন।

৪. অনেকেরই অভ্যেস রয়েছে খোলা চোখ আঁকা। এই ধরনের ডুডল আঁকিয়ের চরিত্রের মুক্ত দিকের কথাই জানায়। আর বুজে থাকা চোখের বেলায় ঘটে তার উলটোটা।

৫. যাঁরা আঁচড় কাটতে কাটতে নিজের নাম লেখেন আর তাকে অলঙ্কৃত করেন, তাঁরা নিঃসন্দেহে আত্মপ্রেমী, আত্মকেন্দ্রিক। এঁদের মধ্যে স্বার্থপরতার প্রবণতা দেখা যায়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *