স্মার্টফোনের সাবধানতা বাড়ান! না হলে হতে পারে বড়ো বিপদ

ফেসবুক, পেটিএম থেকে টাকা মেটানো, গান শোনা, ভিডিও দেখা, ছবি তোলা ইত্যাদি স্মার্টফোনে করেই থাকি। হটাৎ একদিন যদি আপনার ফেসবুক হ্যাক হয়ে যায় বা আপনার ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট থেকে টাকা হাওয়া হয়ে যায় তাহলে। এমনটাই হতে পারে বলে জানাচ্ছেন সাইবার নিরাপত্তা বিশেষজ্ঞ বিনীত কুমার।

প্রায় শোনা যাচ্ছে ফেসবুক হ্যাক হয়ে গেছে বা ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট থেকে টাকা চুরি হয়ে গেছে। চিভনিং অ্যালামনি ইন্ডিয়ার কলকাতা চ্যাপ্টারের আয়োজনে ‘সাইবার সিকিউরিটি চ্যালেঞ্জেস অ্যান্ড অপারচুনিটিজ’ নিয়ে বলতে এসে বিনীত কুমার জানাচ্ছেন, আপনার ফোনও অজান্তে বিপদ ডেকে আনতে পারে। সাইবার সিকিউরিটি বিশেষজ্ঞ ও সাইবার পিস ফাউন্ডেশনের প্রধান বিনীত কুমার সাবধানবানী বলেছেন। জেনে নিন এবং সাবধান হন।

এখনকার দিনে ভাইরাসের যুগ চলে গিয়ে এখন নতুনভাবে এসেছে ‘বটস্’। ভাইরাসের থেকে বড়ো মারাত্মক বলা হচ্ছে বটস্ কে। কোন সাইট থেকে সাইবার অপরাধীরা হটাৎ কোনদিন আপনার ফোনে কোনো বিপজ্জনক প্রোগ্রাম ঢুকিয়ে দেবে আপনি বুঝতেই পারবেন না। বেশিভাগ মানুষের ফোন কিছু দিন ব্যবহার করার পরেই ফোন স্লো হয়ে যায়। অনেকে ভাবেন ফোন বেশি ব্যাবহারে,ডাউনলোড করার ফলে বা মেমরি ভর্তি হয়ে যাবার ফলে ফোন স্লো হয়ে যাচ্ছে। কিন্তু বিনীত বলছেন, আপনি কোনো লিঙ্ক ক্লিক করে আপনার ফোনে বটস্ নিয়ে এসেছেন আপনিই। সেই প্রোগ্রামগুলিই আপনার ফোনের তথ্য চুরি করছে। এটাও জানাচ্ছেন, ফোন স্লো না হলেও পিছনে হয়তো অন্য কেউ আপনার ফোন চালাচ্ছে এমনটাও হতে পারে।

বিনীত কুমার কী কী সাবধানতা মেনে চলার কথা বলেছেন

১. আপনি যে ফোনই ব্যবহার করুন না কেন, তা নিয়ম করে আপডেট করুন।

২. ফোনে যেকোনও সাইট খুলবেন না।

৩. ফোনের একটি শক্ত পাসওয়ার্ড রাখুন। পারলে প্যাডলক ব্যবহার করুন।

৪. ফোনের মধ্যে যে অ্যাপ গুলি রয়েছে যেমন – ফেসবুক, হোয়াটস অ্যাপ, পেটিএম, মিডিয়া প্লেয়ার ইত্যাদি নিয়মিত আপডেট করুন।

৫. যে কোনও লিঙ্কে ক্লিক করবেন না।

৬. ইউআরএল-এর কাছে লাল দাগ দেওয়া প্যাডলক দেখলে সেই সাইট এড়িয়ে যান। আজকাল আর ভাইরাস নয়, বটের মাধ্যমে আপনার ফোনের তথ্য চুরি হতে পারে।

৭. ফেসবুক বা জিমেল ই অবশ্যই সেগুলিতে ‘টু-স্টেপ’ ভেরিফিকেশন বা পাসওয়ার্ড ঠিক করুন।

৮. ফোন যে কোনো লোককে ব্যবহার করতে দেবেন না।

৯. ফোনে কোনও ভালো অ্যান্টি-ভাইরাস ডাউনলোড করে রাখুন।

১০. কোনও অ্যাপ্লিকেশন ডাউনলোড করার আগে সাবধান। ভাল করে দেখে নিন, বিনা পয়সায় সেটি পেলেও বিশ্বাসযোগ্য কিনা।

১১. ফোনের দোকানে গিয়ে দোকানদারকে অ্যাপ ডাউনলোড করে দিতে বলবেন না।

এখনকার দিনে স্মার্টফোনের সাহায্যে সব কাজ কত সহজ হয়ে যাচ্ছে যেমন – ইলেক্ট্রিক বিল, টিভি, মাইক্রোওভেন, দূরে টাকা পাঠানো কিন্তু যদি স্মার্টস্ফোনটি হ্যাক হয়ে যায়। এমন দিনও আসতে পারে বলেই বিনীত কুমার সাবধানতা কথা বলেছেন।

কিন্তু বিনীত কুমার এটাও বলছেন, স্মার্টফোন ছাড়া তো আমাদের চলবে না। তাই ফোন ব্যবহার করার সময়ে সাবধানতা গুলি অবলম্বন করে চলুন তাহলে দেখবেন আপনার ফোন সুরক্ষিত থাকবে।

Share this post

Post Comment